skip to content
CurryNaari
Welcome to Nandini’s world of cooking & more...

মেখে রাখা আটা দীর্ঘ সময়ের জন্য তাজা রাখার ৬টি টিপস

আটা মেখে রাখা

গম বা আটার রুটি সারা ভারতে খাওয়া হয়। গোল এবং নরম রুটি বিভিন্ন ধরনের সবজি ও ডাল দিয়ে খাওয়া হয়। আটা প্রতি বাড়িতে বেশির ভাগ সময় মাখার পর কিছুটা হলেও অতিরিক্ত হয়। তখন তা ফ্রিজে রেখে দি। কিন্তু এই সংরক্ষণ বেশি দিন করা সম্ভব নয়। তাই মেখে রাখা আটা দীর্ঘ সময়ের জন্য তাজা রাখার ৬টি টিপস নিয়ে আজ হাজির। এই লেখা অনেকের এই সমস্যার সমধান হতে চলেছে।

১. অতিরিক্ত জল ব্যবহার এড়িয়ে চলুনঃ

রুটি ময়দা মাখার সময় খেয়াল রাখবেন এতে বেশি জল যেন না মেশানো হয়। এটি করলে এটি আরও খারাপ হতে পারে। মাখার সময় সর্বদা অল্প পরিমাণে জল যোগ করুন। যদি আটা খুব ঢিলে হয়ে যায় তবে এতে সামান্য শুকনো আটা যোগ করুন এবং সামঞ্জস্য বজায় রাখুন। এতে করে যখন এটি স্টোর করবেন তখন প্রায় অনেকদিন ভালো থাকবে।

২. মাখার সময় কিছু তেল যোগ করুনঃ

রুটি ময়দা মাখার সময়, এতে কিছুটা তেল দিতে ভুলবেন না। তেল রুটিকে বেশিক্ষণ নরম রাখতে সাহায্য করবে। আর যদি আটা মাখা সংরক্ষণ করে রাখতে চান তাতেও লাভ হবে। তেল দিয়ে আটা মাখলে তা দ্রুত নষ্ট হয় না।

৩. হালকা গরম জল বা দুধ ব্যবহার করুনঃ

আপনার আটা নরম করতে, তাতে হালকা গরম জল বা দুধ যোগ করুন। নরম গমের আটা পেতে ১০-১৫ মিনিটের জন্য ভালো করে মাখুন। নিয়মিত বা ঠাণ্ডা জল ব্যবহার করলে রুটি শক্ত হয়ে যায় এবং তা তৈরি করা কঠিন হয়ে যায়। তাছাড়া মেখে রাখা আটা দ্রুত নষ্ট হয়ে যায় সংরক্ষণ করতে চাইলে। তাই মেখে রাখা আটা দীর্ঘ সময়ের জন্য তাজা রাখতে মাখার সময় হালকা গরম জল বা দুধ যোগ করুন।

৪. এয়ার টাইট পাত্রে সংরক্ষণ করুনঃ

মাখানো আটা কখনই রেফ্রিজারেটরে খোলা রাখা উচিত নয়, অন্যথায় এটি নষ্ট হয়ে যাবে। তা একটি এয়ার টাইট পাত্রে সংরক্ষণ করুন। আটায় গমের ব্যাকটেরিয়া থাকার কারণে ময়দা নষ্ট হওয়ার হার বেশি। তাই এটি দীর্ঘ সময়ের জন্য সংরক্ষণ করার জন্য এটি একটি এয়ার-টাইট পাত্রে রাখা গুরুত্বপূর্ণ।

৫. ময়দার উপর ঘি বা তেল ব্যবহার করুনঃ

ময়দা যাতে নষ্ট না হয় সেজন্য এর উপর ঘি বা তেলের পাতলা স্তর লাগিয়ে ফ্রিজে রেখে দিন। ময়দা মসৃণ করলে এটি শুকনো বা কালো হবে না। এছাড়াও, আপনি যদি এই টিপটি ব্যবহার করেন তবে আপনি প্রতিবার নরম এবং তাজা রুটি পাবেন।

৬. প্লাস্টিকের মোড়ানো বা অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল দিয়ে আবরণঃ

প্রতিবার আপনি ব্যবহারের জন্য আটা বের করার সময়, এটি একটি এয়ার-টাইট পাত্রে রাখুন এবং প্লাস্টিকের মোড়ক বা অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল দিয়ে ঢেকে দিন। তাতে করে অতিরিক্ত মেখে রাখা আটা ভালো থাকবে অনেকদিন।

বিশেষ কথাঃ

মনে রাখবেন যে সাধারণ আটা একটি শক্তভাবে বন্ধ প্লাস্টিকের পাত্রে সংরক্ষণ করলে ৬ মাস থাকে। যাইহোক, যদি এটি একটি নিয়মিত ক্যাবিনেটে সংরক্ষণ করা হয়, তবে এটি একটি ছোট শেলফ লাইফ আছে। রেফ্রিজারেটর বা ফ্রিজারে সিল করা পাত্রে আটা সংরক্ষণ করা ভাল ধারণা।

তবে অনেক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ বলছেন, দীর্ঘদিন ধরে মেখে রাখা আটা ব্যবহার করা ক্ষতিকর হতে পারে। আটা মাখার পরে, এটি অবিলম্বে রান্নার জন্য ব্যবহার করা ভালো। এটি দীর্ঘ সময়ের জন্য রাখা ক্ষতিকারক পদার্থকে আকর্ষণ করতে পারে যা আপনার স্বাস্থ্যের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে।

আপনি যদি দিনে প্রচুর পরিমাণে আটা ব্যবহার করতে না চান তবে প্রচুর পরিমাণে আটা মাখানো ভালো নয়। প্রতিদিনের ব্যবহার অনুযায়ী অল্প পরিমাণে আটা প্রস্তুত করুন।

Visual Stories

Article Tags:
Article Categories:
Tips & Hacks

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

মুখরোচক ফ্রাইড রাইসের ৯ টি রেসিপি বাঙালীর ঐতিহ্যবাহী সকালের জলখাবার বাঙালির ১০ টি আচার যা জিভে জল আনে নিমেষে! মধ্যপ্রাচ্যে খুবই বিখ্যাত এই ৯ টি বাঙালির খাবার অযোধ্যার বিখ্যাত ঐতিহ্যবাহী ১০ টি খাবার!